ইতিহাসের সেরা ২০-টি ভুল

ইতিহাসের সেরা ২০-টি ভুল

ভুলের উর্ধে কেউ নয়। সাধারণ মানুষের জীবনের পরতে পরতে ভুলের কালিমা লেগে আছে। কিছু ভুল মার্জনা করা যায়, কিছু ভুল শুধরে নেয়া যায়। কিন্তু কিছু কিছু ভুল থাকে যার যার প্রতিফল হাজার বছরেও শেষ হয় না। পৃথিবীর ইতিহাসে এমন কিছু ছোটখাট ভুল আছে যে গুলোর মাশুল ছিল অনেক বড়। সেগুলো অনেক বড় বড় ঘটনার জন্ম

৬৮ জেলার নামকরণের ইতিহাস

৬৪ জেলার নামকরণের ইতিহাস

ব্রিটিশ শাসনামলে তৎকালীন বাংলা প্রদেশে সর্বপ্রথম বিভাগ গঠন করা হয়। সে সময় বর্তমান বাংলাদেশের ভূখণ্ডে রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম এই তিনটি বিভাগ গঠন করা হয়। পরবর্তীতে রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের একাংশ নিয়ে ১৯৬০ সালে খুলনা বিভাগ গঠিত হয়। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশে এই চারটি বিভাগ ছিল। পরবর্তী কালে খুলনা বিভাগের একাংশ নিয়ে ১৯৯৩ সালে বরিশাল বিভাগ গঠিত হয় এবং ১৯৯৮

মহামারী করোনা রোগের ইতিহাস

মহামারী রোগের ইতিহাস

আজ জানুন মহামারী করোনা রোগের ইতিহাস। করোনার মতো মহামারী বিশ্বে নতুন কিছু নয়। যুগে যুগে বিভিন্ন বিভিন্ন রোগ বিভিন্ন সময়ে মানব জাতির উপরে মরণ ছোবল দিয়েছে। কোন নির্দিষ্ট এলাকায় যখন কোন রোগের প্রকোপ ঘটে। তখন তাকে অ্যান্ডেমিক রোগ বলে। ১৯৭৪-এ ভারতের উত্তর প্রদেশ এবং বিহারে ২০ হাজারের মত মানুষ গুটি বসন্তে মারা গিয়েছিল। এটা ছিল

তেলের ‍মূল্য বনাম রাশিয়ান রাজনীতি

তেলের ‍মূল্য বনাম রাশিয়ান রাজনীতি

ইতিহাস স্বাক্ষী, তেলের মূল্য রাশিয়া ওঠানামার সাথে রাশিয়ার (সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন) রাজনীতির একটি গভীর কার্যকারণ সম্পর্ক রয়েছে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে সোভিয়েত ইউনিয়ন ও আমেরিকার নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা ব্লকের মধ্যে পারস্পরিক সৌহার্দ্য হ্রাস পায়, অবিশ্বাস ঘণীভূত হয়, দূরত্ব বাড়তে থাকে-  এক কথায় ‘ঠাণ্ডা যুদ্ধ’ চলতে থাকে। ১৯৭৫ সালে ক্রমবর্ধমান এ সংকটকে একটি স্থিতাবস্থায় আনার প্রচেষ্টা নেয়া হয়।

মধ্যপ্রাচ্য সঙ্কট ও নেপথ্য ইতিহাস

মধ্যপ্রাচ্য সঙ্কট ও নেপথ্য ইতিহাস

এটুকু বললে হয়তো বেশি বলা হবে না যে এক মধ্যপ্রাচ্যের রাজনীতি এবং মধ্যপ্রাচ্য সঙ্কট বাকী পৃথিবীর সকল রাজনীতির চেয়েও বেশী জটিল। দাবা খেলায় উভয় পক্ষই যেমন মধ্যমাঠের নিয়ন্ত্রণে ব্যতিব্যস্ত থাকে, আধুনিক সভ্যতার ঊষালগ্ন থেকে ঠিক তেমনি ভাবে পৃথিবীর শক্তিধর দেশগুলো মধ্যপ্রাচ্যকে করতলে নেয়ার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। আজকের মধ্যপ্রাচ্য সংকট সূর্যোদয় হয়েছিলো শতাধিক বছর আগে ১৯১৬

ফিদেল ক্যাস্ট্রো সমীপে

ফিদেল ক্যাস্ট্রো সমীপে

২৫ নভেম্বর ২০১৬ সালে ফিদেল ক্যাস্ট্রো মারা যায়। তাঁর মৃত্যুর তিন দিন পরে… কমরেড মহাশয়, শতশত ভক্তের অশ্রুস্নাত হয়ে আপনি তো চলে গেলেন।  এখন তো পুঁজিবাদী লাভ-লোকসান হিসাবের পালা- বিপ্লব, মুক্তি, সাম‍্য এসবের নামে কী নামে আপনি কি কি নিলেন, কি দিলেন আর কী-ই বা আমাদের জন‍্য রেখে গেলেন? আপনার যে দাড়ি দেশের জন্য ‘অনেক

জঙ্গিবাদ- প্রেক্ষাপট বাংলাদেশ

জঙ্গিবাদ- প্রেক্ষাপট বাংলাদেশ

“আমরা সবাই তালেবান, বাংলা হবে আফগান”- স্লোগানের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে মৌলবাদী সংগঠনের গোড়াপত্তন হয় ১৯৯২ সালে।  সোভিয়েত-আফগান যুদ্ধে (১৯৭৯-৮৯) বেশ কিছু মুজাহিদ আফগানদের পক্ষে যুদ্ধ করেছিল। তালেবানদের বিজয়ে উদ্বুদ্ধ আফগানফেরত এ সকল ম‍্যাকবেথরা ৩০ এপ্রিল  জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ‘হরকাতুল জিহাদ আল-ইসলামী বাংলাদেশ’ (হুজি) নামে একটি দল তৈরির ঘোষণা দিয়েছিল। এর দু’বছর পরে

হ্যালোউইন

হ্যালোউইন

আমার ধারণা ছিল যে ভূত-প্রেতাত্মা শুধু বাংলাদেশ, ভারতের গ্রামাঞ্চলের মেধাস্বত্ত্ব। এখন তো দেখি ইউরোপ-আমেরিকার লোকজনও কম কুসংস্কারাচ্ছন্ন নয়। এদের বিশ্বাসে ভূত, ভ‍্যাম্পায়ার, ডাকিনী, জমবি (zombie) কোনোটারই কোনো ঘাটতি নেই। এরা ভূতে যে শুধু বিশ্বাস করে তা নয়, রীতিমত ভূতের পূজা-অর্চনা করে প্রতি বছর হাজার হাজার কোটি টাকার ব‍্যবসা করছে। পাশ্চাত‍্যে ভূতের এ  পূজা, এ ব‍্যবসার নাম

শতকের প্রভাবশালী ব্যক্তি

শতকের প্রভাবশালী ব্যক্তি

দুই হাজার বছরের ২০ প্রভাবশালী ব্যক্তি দুই হাজার বছরের পৃথিবীর ইতিহাসে প্রতি শতকে এক এক জন প্রভাবশালী ব্যক্তি জন্মেছিল। এ সকল ব্যক্তিরা সবাই আবার সেই শতক থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত স্ব স্ব মহিমায় সমুজ্জ্বল। প্রতি শতক থেকে এক জন করে দুই হাজার বছরের ইতিহাস হতে ২০ জনকে নির্বাচিত করে এই সংকলন। যিশু খ্রিস্টঃ খ্রিস্টিয়

ইয়েমেন সঙ্কট

ইয়েমেন সঙ্কট

আধুনিক বিশ্বরাজনীতির সুতিকাগার মধ্যপ্রাচ্য; সঙ্কটেই যেন সৌন্দর্য। এশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাংশে আরব উপদ্বীপে এডেন উপসাগরের কোল ঘেঁষে রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের একটি দেশ। নাম ইয়েমেন- সরকারি ভাষায় আজকের দিনটি পর্যন্ত ‘রিপাবলিক অব ইয়েমেন’, কালকে কী হবে তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু কেন? ইয়েমেনের সাথে মধ্যপ্রাচ্যের অন্য দু’টি দেশের সীমান্ত রয়েছে- উত্তরে সুন্নি রাজতন্ত্রের সৌদিআরব আর পূর্বে ওমান। ইয়েমেন নামে এখন

Alauddin Vuian

লও হে মা দিবস

মা দিবস প্রচলনের পেছনে যে মার্কিন মহিলার অবদান অনস্বীকার্য, সেই আনা জার্ভিস নিজে কোনদিন মা ছিলেন না। আনা ছিলেন সমাজকর্মী অ্যান রেভেস জার্ভিসের দশম সন্তান। মায়ের নারী সেবামূলক কর্মকাণ্ডের জন্য সে বরাবরই অ্যানের অনুরক্ত ছিলেন। অসুস্থ হয়ে পড়লে আনা নিবিড়ভাবে মায়ের সেবা-শশ্রূষা শুরু করেন। মায়ের মৃত্যুর তিন বছর পরে ১৯০৮ সালে অনানুষ্ঠানিকভাবে আমেরিকার ভার্জিনিয়াতে তিনি

এপ্রিল ফুল, তথ্যের ভুল?

এপ্রিল ফুল, তথ্যের ভুল?

এপ্রিল ফুল’স ডে’র জন্ম ইতিহাস আজও রহস্যজনক; সভ্যতার ইতিহাসে ঠিক কোন বছর হতে এই দিনটির প্রথা চালু হয়েছে তা মানুষের কাছে অদ্যাবধি অজানা। ইংরেজি সাহিত্যের জনক জিওফ্রে চসার ১৩৯২ সালে লেখা ‘নান’স প্রিস্ট টেল’ কবিতায়মার্চ মাসের একটি বত্রিশতম দিনের কথা উল্লেখ করেন। কারো কারো মতে এই বত্রিশতম দিনটি বলতে চসার পহেলা এপ্রিলকে বুঝিয়েছিলেন। তবে ঐতিহাসিক

ব্ল্যাক ফ্রাইডে

ব্ল্যাক ফ্রাইডে

যুক্তরাষ্ট্রে নভেম্বরের চতুর্থ বৃহস্পতিবার ‘থ্যাঙ্কসগিভিং ডে’ হিসেবে পালিত হয়। ‘থ্যাঙ্কসগিভিং ডে’ এক ধরণের নবান্ন উৎসব- ভালো ফসলের জন্য বিধাতাকে ধন্যবাদজ্ঞাপন। এর পরের দিনই ‘ব্ল্যাক ফ্রাইডে’ হিসেবে পরিচিত। নামের সাথে ‘ব্ল্যাক’ থাকলেও দিনটি কোনো শোকের আবহ বহন করে না। (যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার মতো দু’একটি রাজ্য ব্যতীত) এটি ছুটির দিন নয়; মহাধুমধামে আর ছাড়ে কেনাকাটার দিন। বড়দিনকে সামনে

বাংলাদেশের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

বাংলাদেশের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

প্রাচীন বাংলা ৩২১ খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে ১৮৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত ভারতীয় উপমহাদেশের পূর্বদিকে সিন্ধু-গাঙ্গেয় সমতলভূমিতে অবস্থিত মগধকে কেন্দ্র করে মৌর্য্য সাম্রাজ্য গড়ে ওঠে। এই সাম্রাজ্যের রাজধানী ছিল পাটলিপুত্র।  চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য্য, বিন্দুসার ও অশোক এই সাম্রাজ্যকে দক্ষিণ ভারতে বিস্তার করেন। চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের রাজ-উপদেষ্টা চাণক্য বা কৌটিল্য বা বিষ্ণুগুপ্ত ছিলেন একজন প্রাচীন ভারতীয় অর্থনীতিবিদ ও দার্শনিক। তিনি অর্থশাস্ত্র নামক রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ক বিখ্যাত গ্রন্থের রচয়িতা ছিলেন। অশোকের মৃত্যুর পঞ্চাশ বছরের মধ্যেই এই সাম্রাজ্যের পতন ঘটে। খ্রিস্টীয় প্রথম ও

সোফিয়া ও বারাক ওবামা!

সোফিয়া ও বারাক ওবামা!

“মার্কিন ডলার বা মুদ্রায় নারীদের ছবি দেখি না কেন?” (প্রাক্তন) মর্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার উদ্দেশ্যে লেখা ম্যাসাচুয়েটস প্রদেশের নয় বছরের ছোট্ট শিশু সোফিয়ার এ প্রশ্নটির কোন সদুত্তর কী তিনি দিতে পেরেছেন! গত বছর ওবামাকে লেখা সেই ‘মহান চিঠি’টির একটি উত্তর পেয়েছে সোফিয়া। তাতে ওবামা লিখেছেন “নারী-পুরুষের সমান অধিকারের একটি দেশে তুমি যেন বেড়ে ওঠো সেটি

কুর্দিস্তানের স্বাধীনতা

কুর্দিস্তানের স্বাধীনতা

ভাবলেই গা শিউরে ওঠে মাত্র নয় মাসের যুদ্ধে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি।  অথচ গত একশো বছর আন্দোলন করেও কুর্দিরা স্বাধীনতা পায়নি, গড়তে পারেনি ‘কুর্দিস্তান’ নামে স্বাধীন, সার্বভৌম কোনো রাষ্ট্র।  স্বাধীনতা শব্দটি কতটা দুষ্প্রাপ্য তা কেবল কুর্দিরাই জানে।  কত রক্ত, কত বিদ্রোহের পরেও আজ তারা পরাধীন।  শুধু পরাধীনই নয় বরং নির্যাতিত; নিজ দেশে আজ তারা পরবাসী।  কুর্দিদের

রোহিঙ্গা সমস্যা জাতিগত, ধর্মীয় নয়

রোহিঙ্গা সমস্যা জাতিগত, ধর্মীয় নয়

জাতিগোষ্ঠীতে বৈচিত্রপূর্ণ দেশ মিয়ানমার। ঐ সরকারের তথ্য মতে, সেখানে ১৩৫টি জাতিগোষ্ঠী রয়েছে যারা আটটি প্রধান ভাগে বিভক্ত- বামার, কাচিন, কাইয়াহ, কাইন, চিন, মুন, রাখাইন, শান ও অন্যান্য (ওয়া, নাগা, লাহু, লিসু ও পালাউঙ)। এদের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠ জাতিগোষ্ঠি যারা মিয়ানমারের জাতিসত্ত্বার মূলধারা বহন করে তারা ‘বামার’ হিসেবে পরিচিত। এ সংখ্যা মাত্র ৬৮ শতাংশ, জনসংখ্যার বাকী অংশ

বার্থোলোমেউ দিবস হত্যাযজ্ঞ

বার্থোলোমেউ দিবস হত্যাযজ্ঞ

যিশু খ্রিস্টের বারো জন শিষ্যে একজন বার্থোলোমেউ (Bartholomew)। ইউরোপে খ্রিস্টানরা ২৪ আগস্টে বার্থোলোমেউ দিবস পালন করতো। ১৫১৭ সালে খ্রিস্টান ধর্ম দুই ভাগ- ক্যাথলিক ও প্রোটেস্ট্যান্ট এ বিভক্ত হয়ে যায়। এ বিভাজনে নেতৃত্ব দিয়েছিল জার্মানির মার্টিন লুথার। ইউরোপের ইতিহাসে এ সময়টাকে ‘সংস্কারকাল’ (Reformation) বলা হয়। ঐ বিভেদের ফলে খ্রিস্টানদের দুই শাখার মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। সমগ্র ইউরোপে বিশেষ

Alauddin Vuian

দানদানকান লড়াই- প্রেক্ষাপট ও ফলাফল

দানদানকান (Dandanqan) এর ঘটনাকে ইতিহাসে Battle of Dandanqan বলা হয়, War of Dandanqan নয়। বাংলায় Battle ও War দুটোকেই “যুদ্ধ” বলা হলেও দুটো এক নয়। সে জন্য একে ‘দানদানকান লড়াই’ বলা যেতে পারে। লড়াইটি হয়েছিল ১০৪০ সালে, খোরাসানে (Khurasan)। বর্তমান ইরানের উত্তর- পূর্বাঞ্চল, তুর্কিমেনিস্তানের দক্ষিণাঞ্চল ও আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলকে নিয়ে গঠিত হয়েছিল খোরাসান। ৯৭৭ থেকে ১১৮৬ সাল পর্যন্ত