ওটজি বা বরফ মানব

ওটজি বা বরফ মানব: জীবন্ত ও অভিশপ্ত এক মমি

ওটজি বললে অনেকেই চিনবেন না। কিন্তু যদি বলি ‘আইসম্যান’ বা ‘বরফ মানব’ তাহলে হয়তো অনেকেই চিনবেন বা বলবেন হ্যাঁ নাম শুনেছি। 1 ১৯ শে সেপ্টেম্বর ১৯৯১ সালে আইসম্যানকে খুঁজে পাওয়ার পরে দুনিয়া জুড়ে প্রচুর হৈ চৈ হয়েছিলো। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রচুর লেখালেখি হয়েছে। আজ থেকে পাঁচ হাজার বছরেরও বেশি সময় আগে এই পৃথিবীতে বরফ মানবের চলাফেরা

অগ্নিপ্রপাত-firefall

অগ্নিপ্রপাত- আগুনের ধারা বহিছে ভূবনে

অগ্নিপ্রপাত (Firefall!) বা ঝর্ণার মতো আগুনের ধারা পড়তে দেখেছেন কখনো? ভাবুন তো, জলপ্রপাত মতো দেখতে কোন একটি স্থান হতে পানির বদলে আগুন ঝরে পড়ছে? ব্যাপারটা অবাক করার মতো, তাই না? চলুন, ঘুরে আসি অসাধারণ এই অগ্নিপ্রপাত থেকে। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার ইয়োসেমাইট ন্যাশনাল ভ্যালির এল ক্যাপিটানের পূর্ব প্রান্তে এই জলপ্রপাতটি অবস্থিত। এর আসল নাম হর্সটেইল জলপ্রপাত। এটি

Juanita-হুয়ানিতা

হুয়ানিতা ধর্মের নিষ্ঠুরতার এক কালসাক্ষী

হুয়ানিতা ধর্মের নিষ্ঠুরতার এক কালসাক্ষী। হুয়ানিতার মমি ধর্মের নামে নারী বলিদানের বিরুদ্ধে এক নিরব প্রতিবাদের প্রতিকস্বরূপ আজও টিকে আছে। ৮ই সেপ্টেম্বর, ১৯৯৫ সালে প্রত্নতত্ত্ববিদ জোহান রেইনহার্ড এবং তার সহকারী মিগুয়েল জারাতে পেরুর আরেকিপায় অবস্থিত মাউন্ট এমপাটোর ২০,৬৩০ ফুট চুড়ায় উঠেন।তাদের লক্ষ্য ছিলো জীবন্ত আগ্নেয়গিরি পর্যবেক্ষণ করা এবং সেই সাথে পর্বতের চূড়ায় আচ্ছাদিত বরফ কি ভাবে