আলোর ভূবনে স্বাগতম

জানা আবশ্যক, জানানো দায়বদ্ধতা

সন্ত্রাসবাদী ও জঙ্গীবাদী মুসলমানের হাতে বিপন্ন ইসলাম

সন্ত্রাসবাদী ও জঙ্গীবাদী মুসলমানের হাতে বিপন্ন ইসলাম

সন্ত্রাসবাদী ও জঙ্গীবাদী মুসলমানের হাতে আজ বিপন্ন ইসলাম। ‘মুসলিম’ ও ‘সন্ত্রাসী’ এবং ‘ইসলাম’ ও ‘উগ্রবাদ’ (extremism) — শব্দযুগলদ্বয় ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে একরকম সমার্থক দ্যোতনার সৃষ্টি করেছে। প্রথমটির মধ্যে দ্বিতীয়টি উহ্য আর দ্বিতীয়টির সাথে প্রথমটি অনুমিত। ২০১৫ সালে ফ্রান্সের সন্ত্রাসী হত্যাকাণ্ড, নৃশংসতা ইউরোপের সবচেয়ে প্রানঘাতী হামলাগুলোর মধ্যে অন্যতম। এই হামলায় অন্তত ১২৯ জন নিহত ও পাঁচ

বিজ্ঞাপনী SMS ও ফোনকল

বিজ্ঞাপনী SMS ও ফোনকল

প্রায় ১৭ কোটি জনসংখ্যার বাংলাদেশে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৫ কোটি ছাড়িয়েছে। যেহেতু একবার ব্যবহার শুরু করে কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার বন্ধ করে দেয় না, সেহেতু মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা  কখনো কমে না, বরং প্রতিদিনই বাড়ছে এ সংখ্যা। বিজ্ঞাপনী SMS ও সেই তুলনায় দিন দিন বাড়ছে। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে যন্ত্রনার নতুন এক মাত্রা যোগ করেছে

হিন্দুর ‘জল’ মুসলমানের ‘পানি’

ফেসবুকে ধর্মপ্রচার, না অপপ্রচার?

ফেসবুক ধর্মপ্রচার হয়, না কি অপপ্রচার? ঈশ্বর কী নিয়মিত ফেসবুকিং করেন? তাঁর কী কোনো ফেসবুক একাউন্ট আছে? যদি ফেসবুক একাউন্ট থাকে, তবে সেটির আইডি কী? আইডি জানা থাকলে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাতাম।  রিকোয়েস্ট একসেপ্ট না করলে ফলো করতাম।  বিষয়টি বুঝতে অনেক দেরী হলো। এতদিনে ঈশ্বর বোধ হয় আমাকে ব্লক করে দিয়েছেন। তবুও, ‘বেটার লেইট দ‍্যান নেভার’।

ফিদেল ক্যাস্ট্রো সমীপে

ফিদেল ক্যাস্ট্রো সমীপে

২৫ নভেম্বর ২০১৬ সালে ফিদেল ক্যাস্ট্রো মারা যায়। তাঁর মৃত্যুর তিন দিন পরে… কমরেড মহাশয়, শতশত ভক্তের অশ্রুস্নাত হয়ে আপনি তো চলে গেলেন।  এখন তো পুঁজিবাদী লাভ-লোকসান হিসাবের পালা- বিপ্লব, মুক্তি, সাম‍্য এসবের নামে কী নামে আপনি কি কি নিলেন, কি দিলেন আর কী-ই বা আমাদের জন‍্য রেখে গেলেন? আপনার যে দাড়ি দেশের জন্য ‘অনেক

জঙ্গিবাদ- প্রেক্ষাপট বাংলাদেশ

জঙ্গিবাদ- প্রেক্ষাপট বাংলাদেশ

“আমরা সবাই তালেবান, বাংলা হবে আফগান”- স্লোগানের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে মৌলবাদী সংগঠনের গোড়াপত্তন হয় ১৯৯২ সালে।  সোভিয়েত-আফগান যুদ্ধে (১৯৭৯-৮৯) বেশ কিছু মুজাহিদ আফগানদের পক্ষে যুদ্ধ করেছিল। তালেবানদের বিজয়ে উদ্বুদ্ধ আফগানফেরত এ সকল ম‍্যাকবেথরা ৩০ এপ্রিল  জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ‘হরকাতুল জিহাদ আল-ইসলামী বাংলাদেশ’ (হুজি) নামে একটি দল তৈরির ঘোষণা দিয়েছিল। এর দু’বছর পরে

হ্যালোউইন

হ্যালোউইন

আমার ধারণা ছিল যে ভূত-প্রেতাত্মা শুধু বাংলাদেশ, ভারতের গ্রামাঞ্চলের মেধাস্বত্ত্ব। এখন তো দেখি ইউরোপ-আমেরিকার লোকজনও কম কুসংস্কারাচ্ছন্ন নয়। এদের বিশ্বাসে ভূত, ভ‍্যাম্পায়ার, ডাকিনী, জমবি (zombie) কোনোটারই কোনো ঘাটতি নেই। এরা ভূতে যে শুধু বিশ্বাস করে তা নয়, রীতিমত ভূতের পূজা-অর্চনা করে প্রতি বছর হাজার হাজার কোটি টাকার ব‍্যবসা করছে। পাশ্চাত‍্যে ভূতের এ  পূজা, এ ব‍্যবসার নাম

শতকের প্রভাবশালী ব্যক্তি

শতকের প্রভাবশালী ব্যক্তি

দুই হাজার বছরের ২০ প্রভাবশালী ব্যক্তি দুই হাজার বছরের পৃথিবীর ইতিহাসে প্রতি শতকে এক এক জন প্রভাবশালী ব্যক্তি জন্মেছিল। এ সকল ব্যক্তিরা সবাই আবার সেই শতক থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত স্ব স্ব মহিমায় সমুজ্জ্বল। প্রতি শতক থেকে এক জন করে দুই হাজার বছরের ইতিহাস হতে ২০ জনকে নির্বাচিত করে এই সংকলন। যিশু খ্রিস্টঃ খ্রিস্টিয়

সামবা নৃত্য

সামবা নৃত্য

ব্রাজিলের সবচে বড় বাৎসরিক উৎসবের নাম কার্নিভাল। এটি মূলতঃ বিভিন্ন মুখোশ ও বাহারি পোশাকে সামবার তালে তালে নাচের প্যারেড। একই সাথে চলে অদম্য পানাহার ও উম্মত্ত ভালোবাসা বিনিময়ের অযাচিত বহিঃপ্রকাশ। খ্রিস্টধর্ম মতে জেরুজালেম শহরের কালভারি নামক স্থানে যিশু খ্রিস্টকে ক্রুশ বিদ্ধ করে হত্যা করা হয়। এই ক্রসিফিকেইশনের তৃতীয় দিনে যিশু খ্রিস্ট পুনরুত্থান লাভ করে। তাই

ইয়েমেন সঙ্কট

ইয়েমেন সঙ্কট

আধুনিক বিশ্বরাজনীতির সুতিকাগার মধ্যপ্রাচ্য; সঙ্কটেই যেন সৌন্দর্য। এশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাংশে আরব উপদ্বীপে এডেন উপসাগরের কোল ঘেঁষে রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের একটি দেশ। নাম ইয়েমেন- সরকারি ভাষায় আজকের দিনটি পর্যন্ত ‘রিপাবলিক অব ইয়েমেন’, কালকে কী হবে তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু কেন? ইয়েমেনের সাথে মধ্যপ্রাচ্যের অন্য দু’টি দেশের সীমান্ত রয়েছে- উত্তরে সুন্নি রাজতন্ত্রের সৌদিআরব আর পূর্বে ওমান। ইয়েমেন নামে এখন

সে, তুমি সমকামি; মাঝখানে কেন আমি?

সে, তুমি সমকামি; মাঝখানে কেন আমি?

সমকামিতা নিয়ে তিনটি জোরালো বির্তক রয়েছে- (ক) সমকামিতা কি শারীরিক বা মানসিক রোগ? (খ) সমকামীতা-প্রকৃতিবিরুদ্ধ, না স্বাভাবিক? এবং (গ) সমকামিতা বা সমকামি সম্পর্ক/ বিবাহের বৈধতাদান কতটুকু যৌক্তিক? মোটাদাগে যৌনকামিরা তিন ধরণের- বিষমকামি (বা ‘স্ট্রেইট’), সমকামি ও উভকামি। এদের মধ্যে সমকামিরা আবার দুই ভাগে বিভক্ত- ‘গে’ (পুরুষে যৌনাসক্ত পুরুষ) ও ‘লেসবিয়ান’ (নারীতে যৌনাসক্ত নারী)। অন্যদিকে, উভকামিরা

hypocrite-saints

ভণ্ড বাবাদের নষ্ট উপাখ্যান

এবারের বাবা দিবসে বাবার কথা নয়, বাবাদের বাবার কথা বলবো। হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী, চার যুগের ( সত্য যুগ, ত্রেতা যুগ, দ্বাপর যুগ) শেষ যুগ হলো কলি যুগ বা পাপের যুগ। বেদব্যাস রচিত বিষ্ণুপুরাণে বলা হয়েছে যে কৃষ্ণের পৃথিবী ত্যাগ করে স্বর্গারোহণের সময় থেকে পৃথিবীতে কলি যুগের সূচনা হয়েছে। কলি যুগে পাপের পরিমাণ যেমন পূণ্যের তিনগুণ তেমনি এ সময়ে

ভূত রহস্য

ভূত রহস্য

শুরুতেই বিষয়টি পরিস্কার করে নেয়া ভালো যে আজকের এই লেখাটি জ্বীন নিয়ে নয়, ভূত নিয়ে। তাই প্রথমে জ্বীন ও ভূতের মাঝে একটি সূক্ষ্ণ রেখা টেনে নেয়া প্রয়োজন। পবিত্র কোরানের ৭২তম ‘সূরা জ্বীন’ ও ১১৪তম ‘সূরা নাস’ এ জ্বীনের অস্তিত্ত্ব স্বীকার করা হয়েছে। মানুষের ন্যায় জ্বীন জাতিও আল্লাহ্তা’লার সৃষ্টি যারা হযরত আদম (আঃ) এর আগমনের ২০০০ বছর পূর্ব থেকেই

কী সাপ দংশিল লখাইরে!

কী সাপ দংশিল লখাইরে!

সাপ নিয়ে যত কল্পকথা বেচারা সাপ! জন্মের পর থেকেই রূপকথা, উপকথা আর পৌরাণিক কাহিনীর হাতে বন্দি। বন্ধুত্বে সাপ আবার শত্রুতায় সাপ, ধর্মে সাপ আবার অধর্মেও সাপ- হলিউড থেকে ঢালিউড, কী প্রাচীন আর কী আধুনিক, সর্বকালের কল্প-কাহিনীতে সাপের অস্তিত্ত্ব রয়েছে। ইসলাম ধর্মে সাপের মুখে করে ইবলিশ বেহেশতে প্রবেশ করে, সনাতনে মাথায় সাপ পেঁচিয়ে বসে থাকেন শিব,

পৃথিবীর বিষাক্ততম প্রাণি

পৃথিবীর বিষাক্ততম প্রাণি

বাংলার ‘বিষাক্ত’ বোঝাতে ইংরেজিতে সাধারণত দু’টি শব্দ ব্যবহৃত হয়- ‘পয়জনাস’ (poisonous) ও ‘ভেনামাস’ (venomous)। ‘পয়জনাস’ হলো সেই সকল প্রাণি যাদেরকে ভক্ষণ করা হলে বা স্পর্শ করলে অন্য প্রাণির শরীরে বিষক্রিয়া শুরু হয়। সেজন্য কোন খাবার খেয়ে আমাদের বদহজম হলে আমরা তাকে ‘ফুড পয়জনিং’ বা খাদ্যে বিষক্রিয়া বলে থাকি।অন্যদিকে, ‘ভেনামাস’ সেই সকল প্রাণি যারা অন্য প্রাণির

Alauddin Vuian

লও হে মা দিবস

মা দিবস প্রচলনের পেছনে যে মার্কিন মহিলার অবদান অনস্বীকার্য, সেই আনা জার্ভিস নিজে কোনদিন মা ছিলেন না। আনা ছিলেন সমাজকর্মী অ্যান রেভেস জার্ভিসের দশম সন্তান। মায়ের নারী সেবামূলক কর্মকাণ্ডের জন্য সে বরাবরই অ্যানের অনুরক্ত ছিলেন। অসুস্থ হয়ে পড়লে আনা নিবিড়ভাবে মায়ের সেবা-শশ্রূষা শুরু করেন। মায়ের মৃত্যুর তিন বছর পরে ১৯০৮ সালে অনানুষ্ঠানিকভাবে আমেরিকার ভার্জিনিয়াতে তিনি

এপ্রিল ফুল, তথ্যের ভুল?

এপ্রিল ফুল, তথ্যের ভুল?

এপ্রিল ফুল’স ডে’র জন্ম ইতিহাস আজও রহস্যজনক; সভ্যতার ইতিহাসে ঠিক কোন বছর হতে এই দিনটির প্রথা চালু হয়েছে তা মানুষের কাছে অদ্যাবধি অজানা। ইংরেজি সাহিত্যের জনক জিওফ্রে চসার ১৩৯২ সালে লেখা ‘নান’স প্রিস্ট টেল’ কবিতায়মার্চ মাসের একটি বত্রিশতম দিনের কথা উল্লেখ করেন। কারো কারো মতে এই বত্রিশতম দিনটি বলতে চসার পহেলা এপ্রিলকে বুঝিয়েছিলেন। তবে ঐতিহাসিক

জু-জুৎসু

জু-জুৎসু

ফুটবল নিঃসন্দেহে ব্রাজিলিয়ানদের এক উন্মাদনার নাম। এর পরে যে দুটি খেলা এদেশে সমধিক জনপ্রয়িতা পেয়েছে তার একটার নাম ব্রাজিলিযান জু-জুৎসু আর অন্যটি হলো ‘কাপোয়েরা’। কাপোয়েরার জন্ম এঙ্গোলাতে আর জু-জুৎসুর জন্ম জাপানে। জু (jiu) অর্থ ‘সুশীল’ আর জুৎসু (jitsu) হলো ‘কৌশল’; অর্থাৎ সুশীল কৌশল। জু-জুৎসু মূলত অপেক্ষাকৃত দীর্ঘ দেহী ও শক্তিশালী কাউকে প্রতিহত করার অন্যতম জনপ্রিয়

আমাজন জঙ্গলে চারটি দিন

আমাজন জঙ্গলে চারটি দিন

আমাজন জঙ্গলে যাত্রা-প্রস্তুতি। বাক্স-পেটরা নিয়ে সবাই হোটেলের নিচে জড়ো হচ্ছিল। আমার মতো সবাই একদিন-দু’দিন আগেই আমাজোনাস প্রদেশের রাজধানী মানাউসে এসে পৌঁছেছে। ব্রাজিলের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত এ প্রদেশেই আমাজন জঙ্গলের মূল অংশের অবস্থান। আয়তনে আমাজোনাস ব্রাজিলের সর্ববৃহৎ প্রদেশ, আয়তন প্রায় ১৬ লক্ষ বর্গকিমি; অর্থাৎ, শুধু এই প্রদেশই আয়তনে বাংলাদেশের ১০ গুণ। যদি এই প্রদেশটি স্বাধীন কোনো দেশ

religious-fundamentalism

ধর্মান্ধতা ও ধর্মবিদ্বেষের সাঁড়াশিতে মানবতার ত্রাহি মধুসূদন

ধর্ম হলো বিশ্বাস– পাপ ও পূণ্যের বিশ্বাস, লৌকিকতা ও অলৌকিকতার বিশ্বাস, নৈতিকতা ও অনৈতিকতার বিশ্বাস, বিশ্বাসযোগ্যতায় বিশ্বাস আবার অবিশ্বাসযোগ্যতায়ও বিশ্বাস; আনুগত্য– বিশ্বাস, প্রার্থনা ও অনুসরণের মাধ্যমে স্রষ্টার প্রতি আনুগত্য, অবতারগণের প্রতি আনুগত্য, প্রচারকগণের প্রতি আনুগত্য আর অনুচরগণের প্রতি আনুগত্য; লিপিবদ্ধ বা অলিখিত জীবন বিধান-ইহজাগতিক সুখ-শান্তি লাভের উপায়, স্বর্গালোকে সুরক্ষা লাভের উপায়, স্রষ্টা ও সৃষ্টির বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার উপায়,

ব্ল্যাক ফ্রাইডে

ব্ল্যাক ফ্রাইডে

যুক্তরাষ্ট্রে নভেম্বরের চতুর্থ বৃহস্পতিবার ‘থ্যাঙ্কসগিভিং ডে’ হিসেবে পালিত হয়। ‘থ্যাঙ্কসগিভিং ডে’ এক ধরণের নবান্ন উৎসব- ভালো ফসলের জন্য বিধাতাকে ধন্যবাদজ্ঞাপন। এর পরের দিনই ‘ব্ল্যাক ফ্রাইডে’ হিসেবে পরিচিত। নামের সাথে ‘ব্ল্যাক’ থাকলেও দিনটি কোনো শোকের আবহ বহন করে না। (যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার মতো দু’একটি রাজ্য ব্যতীত) এটি ছুটির দিন নয়; মহাধুমধামে আর ছাড়ে কেনাকাটার দিন। বড়দিনকে সামনে

বাংলাদেশের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

বাংলাদেশের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

প্রাচীন বাংলা ৩২১ খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে ১৮৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত ভারতীয় উপমহাদেশের পূর্বদিকে সিন্ধু-গাঙ্গেয় সমতলভূমিতে অবস্থিত মগধকে কেন্দ্র করে মৌর্য্য সাম্রাজ্য গড়ে ওঠে। এই সাম্রাজ্যের রাজধানী ছিল পাটলিপুত্র।  চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য্য, বিন্দুসার ও অশোক এই সাম্রাজ্যকে দক্ষিণ ভারতে বিস্তার করেন। চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের রাজ-উপদেষ্টা চাণক্য বা কৌটিল্য বা বিষ্ণুগুপ্ত ছিলেন একজন প্রাচীন ভারতীয় অর্থনীতিবিদ ও দার্শনিক। তিনি অর্থশাস্ত্র নামক রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ক বিখ্যাত গ্রন্থের রচয়িতা ছিলেন। অশোকের মৃত্যুর পঞ্চাশ বছরের মধ্যেই এই সাম্রাজ্যের পতন ঘটে। খ্রিস্টীয় প্রথম ও

পহেলা বৈশাখ

পহেলা বৈশাখ উদযাপন বিতর্ক

পহেলা বৈশাখ উদযাপন আসলে প্রতি বছরই বিপরীতমূখী দু’টি মতভেদ প্রকট হয়ে ওঠে- প্রগতিশীল ও রক্ষণশীল মতবাদ। প্রগতিশীলরা মূলত উৎসব উদযাপনে বিশ্বাসী। তারা এ বছর রমনায় গিয়ে পান্তা-ইলিশ খাবে, আগামি বছরে বোটানিক্যাল গার্ডেনে গিয়ে যদি বিরিয়ানি পায় তাও খাবে; যাওয়া-খাওয়ার আনন্দটাই এদের কাছে মূখ্য। এরা সংস্কৃতিকে বহন করে, ধারণ করে না। রক্ষণশীল মতবাদের আবার দুটি ধারা

সোফিয়া ও বারাক ওবামা!

সোফিয়া ও বারাক ওবামা!

“মার্কিন ডলার বা মুদ্রায় নারীদের ছবি দেখি না কেন?” (প্রাক্তন) মর্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার উদ্দেশ্যে লেখা ম্যাসাচুয়েটস প্রদেশের নয় বছরের ছোট্ট শিশু সোফিয়ার এ প্রশ্নটির কোন সদুত্তর কী তিনি দিতে পেরেছেন! গত বছর ওবামাকে লেখা সেই ‘মহান চিঠি’টির একটি উত্তর পেয়েছে সোফিয়া। তাতে ওবামা লিখেছেন “নারী-পুরুষের সমান অধিকারের একটি দেশে তুমি যেন বেড়ে ওঠো সেটি

মহান স্বকামী (সালভাদর ডালি), ১৯২৯

শিল্প-সাহিত‍্যে স্বকাম

শিল্প-সাহিত‍্যে স্বকাম বোঝার জন্য একটু ইংরেজির সহায়তা প্রয়োজন। ইংরেজি ‘ম‍্যাসটারবেইশন’ শব্দের প্রচলিত বাংলা প্রতিশব্দের যুক্তাক্ষর বা ঐ-কার শব্দটির আয়তন যতটা বাড়িয়েছে শ্রতিকটুতা ততটা কমাতে পারেনি।  তাই ‘হস্ত’ রেখে শব্দমৈথুন করে ‘স্বকাম’ নিয়ে এগুতে হলো। এটাই শিল্প।  দেখার চোখ ও বোঝার চোখের মধ‍্যে যেটুকু ফাঁকি দিয়ে ততটুকুই শিল্পের পরিব‍্যাপ্তি।  শিল্পীরা এখানেই আমাদের থেকে ভিন্ন।  তারা ভিন্ন

কুর্দিস্তানের স্বাধীনতা

কুর্দিস্তানের স্বাধীনতা

ভাবলেই গা শিউরে ওঠে মাত্র নয় মাসের যুদ্ধে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি।  অথচ গত একশো বছর আন্দোলন করেও কুর্দিরা স্বাধীনতা পায়নি, গড়তে পারেনি ‘কুর্দিস্তান’ নামে স্বাধীন, সার্বভৌম কোনো রাষ্ট্র।  স্বাধীনতা শব্দটি কতটা দুষ্প্রাপ্য তা কেবল কুর্দিরাই জানে।  কত রক্ত, কত বিদ্রোহের পরেও আজ তারা পরাধীন।  শুধু পরাধীনই নয় বরং নির্যাতিত; নিজ দেশে আজ তারা পরবাসী।  কুর্দিদের